মনোযোগী

আপনার মন কি মনোযোগী?

সত্যি করে বলেনতো নিচের ঘটনাটি গত এক মাসে আপনার জীবনে কতবার ঘটেছে?

কাচের দরজায় লেখা আছে, টানুন, কিন্তু আপনি ধাক্কা দিচ্ছেন। পরে খেয়াল করছেন, অহো, ঠেলছি কেন? আমাকে তো টানতে হবে।

কেন এমনটা হয়? এমনটা হয় কারণ আপনি ঠিক ঐ মুহুর্তে মনোযোগী ছিলেন না। আপনি ঠিক ঐ মুহুর্তে বর্তমানে ছিলেন না। আপনার মন হয়তো অতীতের বা ভবিষ্যতের কিছুতে মগ্ন ছিল। তাই চোখের সামনে স্পষ্ট ‘টানুন’ লেখাটা দেখতে পারলেও বুঝতে পারেননি।

যখন যে কাজ করছেন, মনটাকে ঠিক তখন সেখানে ধরে রাখতে পারলেই আপনাকে মনোযোগী বলা হয়। আর আপনি যখন মনোযোগী, আপনার কাজের গুনগত মানও আকাশচুম্বী। আপনার উৎপাদন সক্ষমতাও হবে অনেক বেশি, কেননা আপনি তখন ভুল করেন কম। ফলে কম সময়ে বেশি কাজ করতে পারছেন।

পরীক্ষার আগের রাতের কথায় চিন্তা করেন। এই রাতে যে মনোযোগ নিয়ে আপনি পড়তে পারেন, অন্য সময়ে যদি একিভাবে মনোযোগ ধরে রাখতে পারতেন তাহলে আপনার পড়াশোনা কোথায় গিয়ে দাড়াতো, ভাবতে পারেন?

মন নিয়ে এই সহজ ফরমুলা আবিষ্কারের পর সাড়া বিশ্বে বিজ্ঞানীদের মধ্যে আগ্রহের বিষয়ে পরিণত হয়েছে, ‘মনোযোগী মন’ এর ধারণাটা। ইংরেজিতে বলা হয়, মাইন্ডফুলনেস (Mindfulness)।

আপনি মাইন্ডফুল মানে হলো, আপনার মন বর্তমানে উপস্থিত আছে, ঠিক এই মুহুর্তে আপনার চিন্তা এবং অনুভুতি ধরতে পারছেন। তবে কোন ধরণের মূল্যায়ন করছেন না বা প্রশ্ন করছেন না, কেন এমন চিন্তা আমার মাথায় আসছে। শুধুমাত্র দূর থেকে সচেতনভাবে খেয়াল করছেন আপনার মাথায় কি কি চিন্তা-ভাবনা আসছে, আবার হয়ত চলে যাচ্ছে।

আপনি, আপনার মন, আপনার চিন্তা ভাবনা, আপনার দেহ যখন একি কাতারে থাকে, আপনি তখন মাইন্ডফুল। এই বৈশিষ্ট্যটাই হচ্ছে মাইন্ডফুলনেস।

আজহারুল ইসলাম
আজহারুল ইসলাম
+ posts

কাউন্সেলিং সাইকোলজিস্ট।
সহকারী অধ্যাপক, এডুকেশনাল এন্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রকাশিত বই

হইচই (২০১৯) 
মনোসন্ধি (২০১৭)
জাদুকাঠি (২০১৬) 

Post Author: আজহারুল ইসলাম

কাউন্সেলিং সাইকোলজিস্ট। সহকারী অধ্যাপক, এডুকেশনাল এন্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। প্রকাশিত বই হইচই (২০১৯)  মনোসন্ধি (২০১৭) জাদুকাঠি (২০১৬) 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।